খিলগাঁও আ’লীগের রাজনীতি করতে হলে ক্যাসিনো খালেদের রাইডহ্যান্ড সাদু’র অনুমতি লাগবে!

বহুল আলোচিত শুদ্ধি অভিযানে গ্রেফতার হওয়া ক্যাসিনো খালেদের রাইড হ্যান্ড হিসেবে পরিচিত ও খিলগাঁও এলাকার আতঙ্ক জুয়ারি শাহদাত হোসেন সাদুর নেতৃত্বে আওয়ামী মৎসজীবী লীগের খিলগাঁও থানার নেতা আবু নাসের রনির উপর হামলা করা হয়েছে বলে জানা যায়।
রনি অভিযোগ করেন, গত ২৯শে নভেম্বর মধ্য রাতে আওয়ামী মৎসজীবী লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে পোস্টার লাগাচ্ছিলেন তারা, এসময় সাদুর নেতৃত্বে কয়েকজন সন্ত্রাসী আসে তাদের সামনে, প্রথমে সাদু নিজে মই লাথি দিয়ে ফেলে দেয়। সাদু জানতে চায় কার পোস্টার, কিসের পোস্টার লাগানো হচ্ছে? রনি তাকে মৎসজীবী লীগের পোস্টার লাগানো হচ্ছে বলে অবগত করলেও সাদু জানান আমি নেতাদের পিছনে কোটি কোটি টাকা ইনভেস্ট করছি, আর তোমরা পোস্টার লাগিয়ে নেতা হয়ে যাবে? এখানে কোনো পোস্টার লাগানো যাবে না বলে হুংকার দিয়ে সাদু বলেন, এখানে আওয়ামী লীগের রাজনীতি করতে হলে আমার অনুমতি নিয়েই করতে হবে। এরপর রনিকে ব্যাপকভাবে সাদুর নেতৃত্বে মারধর করা হয় বলে রনির অভিযোগ। তারপর দেয়ালে লাগানো অনেক পোস্টার তারা ছিড়ে ফেলেন। এরপর রনি খিলগাঁও থানায় একটি মামলা ধায়ের করেন। মামলা নং- ৮২, ধারা- ১৪৩/৩২৩/৩২৫/৫০৬।


মামলায় ১ নম্বর আসামি শাহাদাত হোসেন সাদু, ২ নম্বর আসামি সোহেল বেপারী, ৩ নম্বর আসামি মোঃ রকি, ৪ নম্বর আসামি রিয়াদ, ৫ নম্বর আসামি কবির ও ৬ নম্বর আসামি উল্লেখ করে নাম দেয়া হয় বাবুর। মামলা সূত্রে জানা যায়, সাদুর লাঠির আঘাতে রনির হাতের হাড় ভেঙে যায় এবং মারাত্মক ভাবে আহত হয়। আর রনি থানায় মামলা করার পর সাদু তাকে বলেন এরকম কয়েকটি মামলায় তার কিছুই হবে না। জানাযায়, এ মামলায় জামিন নিয়ে এসেছেন সাদু। রনি বলেন, আমার চারজন মামা মুক্তিযোদ্ধা। দেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে আমার চারজন মামা ভূমিকা রেখেছেন, আমি দীর্ঘদিন প্রবাসে থেকে এখন রাজনীতিতে সক্রিয় ভূমিকা পালন করতে চাচ্ছি তাতেও এই চাঁদাবাজ, সন্ত্রাসী, মাদক ব্যবসায়ীদের কাছে জিম্মি হতে হবে?
আমি এর সঠিক বিচার ও শাস্তি নিশ্চিত করার দাবি জানাই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *